শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কুমিল্লায় ৩৮ দিন পর শিশু’র লাশ উদ্ধার লুটপাট-দুর্নীতি রুখতে মুক্তিযুদ্ধের পুনর্জাগরণের ডাক কুমিল্লার মুরাদনগরে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সাংস্কৃতিক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রাজশাহীর তানোরে আলুর জমিতে আছড়ে পড়ল প্রশিক্ষণ বিমান’ পাইলট আহত অপর প্রশিক্ষণার্থী অক্ষত ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে রাজধানীতে গ্রেফতার-৪২ বিজিবির চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে গোদাগাড়ীতে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা-হেরোইন উদ্ধার যুবক আটক রংপুরে প্রথম ওমেন্স ড্রিমার ক্রিকেট একাডেমি টুর্নামেন্ট’র খেলা শুরু র‌্যাব-৫ এর অভিযানে বিদেশী পিস্তল’ ওয়ান শুটারগান, গুলি ও ম্যাগজিনসহ ০১ অস্ত্র ব্যবসায়ী গ্রেফতার মোহনপুরে পূজা মন্দিরের নিরাপত্তায় কাজ করছে সশস্ত্র আনসার সদস্যরা রংপুর মেট্রোপলিটন ডিবি পুলিশের এএস আই কর্তৃক নবম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ!

পেঁয়াজ-চাল-লবণের পর বেড়েছে ময়দার দাম!

সাইবার নিউজ একাত্তর অনলাইন ডেস্ক :

বাংলাদেশে কিছুদিন আগে পেঁয়াজ, এরপর চাল শেষে লবণের পর এবার দাম বেড়েছে ময়দার। গত দুই সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতি কেজি ময়দার দাম বেড়েছে ১০ টাকা। আগে যে ময়দা ১৩৫০ থেকে ১৪০০ টাকায় বিক্রি হত, তা এখন বস্তা প্রতি ১৮০০ থেকে ১৯০০ টাকায় ঠেকেছে। বসুন্ধরা ও এসিআই সরবরাহ বন্ধ করে দেয়ার পর এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

অনুমান করা হচ্ছে, জানুয়ারি মাসের আগে ময়দার কাঁচামাল উন্নতমানের গম পাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। এ সময়ের মধ্যে ময়দার দাম আরো অনেক বেশি বেড়ে যেতে পারে। সেসঙ্গে ময়দার পাশাপাশি তেল, চিনি, ডিম ও ডালের দাম বেড়ে যাওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন বেকারি খাতের উদ্যোক্তারা।

এদিকে বিভিন্ন পর্যায়ের ক্রেতা-বিক্রেতার কাছ থেকে জানা যায়, কয়েক দিন ধরে দুই থেকে তিন হাজার টাকা বাড়িয়ে পাইকারি বিক্রেতারা এক ড্রাম তেল বিক্রি করছেন ১৩ হাজার টাকায়। এছাড়া ডালের দাম বেড়েছে অন্তত ২০০ টাকা। ১০৮০ টাকা থেকে বেড়ে এখন ডাল বিক্রি করা হচ্ছে ১২৫০ টাকায়। ৫০ কেজি ওজনের এক বস্তা চিনির দাম এত দিন ছিল ২১৫০-২২০০ টাকা, তা এখন বিক্রি হচ্ছে ২৭৫০ টাকায়। এ হিসাবে পাইকারি বাজারেই প্রতি কেজি চিনিতে ১১ থেকে ১২ টাকা, প্রতি কেজি ডালে ১৫ থেকে ১৬ টাকা, প্রতি লিটার পাম অয়েল ১৬ থেকে ১৭ টাকা এবং প্রতি কেজি ময়দার দাম ১০ টাকা বেড়েছে। পাইকারি বাজারের সঙ্গে তাল মিলিয়ে খুচরায় বেড়েছে আরও বেশি হারে।

এ দিকে কার্গো বিমানে পেঁয়াজ আসতে শুরু করায় পাইকারি বাজারে পণ্যটির দাম প্রতিদিন কমছে। কিন্তু রাজধানীর খুচরা বাজারে এর প্রভাব তেমন পড়ছে না। মনিটরিং না থাকায় খুচরা ব্যবসায়ীরা থেকে যাচ্ছেন ধরাছোঁয়ার বাইরে। রাজধানীর বিভিন্ন খুচরা বাজার এবং পাড়ার দোকানগুলোতে গতকালও দেশী পেঁয়াজ ২০০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। আর মিসর, তুরস্ক ও মিয়ানমারের পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ১৪০ থেকে ১৭০ টাকা কেজি দরে।

কাওরান বাজারে গতকাল দেশী পেঁয়াজ ১৫০ টাকা, মিয়ানমারের পেঁয়াজ ১৪০ টাকা ও মিসরের পেঁয়াজ ১১০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। তবে খুচরা বাজারে দেশী পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ২০০ টাকা কেজি দরে।

এদিকে এতদিন বেশি দামে কেনা পেঁয়াজে লোকসান গুনতে হচ্ছে খুচরা বিক্রেতাদের।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে ভাগ করুন

খন্দকার ভবন তানোর থানার মোড় প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন তানোর, রাজশাহী থেকে প্রকাশিত। মোবাইল: ০১৭১৫-২৯৭৫২৪, ০১৭১৬-৮৪৪৪৬৫, ০১৯২০-৪৪০১১২ E-mail: cbnews71@gmail.com Web: www.cybernews71.com Facebook: www.facebook.com/cbnews71 www.twitter.com/CyberNews71 Youtube: //www.youtube.com/cbnews71

© কপিরাইট : খন্দকার মিডিয়া গ্রুপ

 বাল্যবিবাহ রোধ করুন, মাদক মুক্ত সমাজ গড়ুন।

ব্রেকিং নিউজ :