মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৭:১২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
রংপুরে প্রথম ওমেন্স ড্রিমার ক্রিকেট একাডেমি টুর্নামেন্ট’র খেলা শুরু র‌্যাব-৫ এর অভিযানে বিদেশী পিস্তল’ ওয়ান শুটারগান, গুলি ও ম্যাগজিনসহ ০১ অস্ত্র ব্যবসায়ী গ্রেফতার মোহনপুরে পূজা মন্দিরের নিরাপত্তায় কাজ করছে সশস্ত্র আনসার সদস্যরা রংপুর মেট্রোপলিটন ডিবি পুলিশের এএস আই কর্তৃক নবম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ! রংপুরে এক এস আই পুলিশ কর্মকর্তার বাসায় চুরি’ এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা খোয়া আলুর খুচরা মূল্য কেজিতে ৫ টাকা বাড়াল সরকার তানোরে শোক সভা ও দোয়া মাহফিল পবিত্র ঈদ-উল-আযহার জামাত ঈদগার পরিবর্তে মসজিদে অনুষ্ঠিতসহ আরএমপি পুলিশের বিভিন্ন নির্দেশনা জারি রাজশাহী মহানগরীতে নীতিমালা প্রত্যাহারের দাবিতে আইডিইবির উদ্যোগে মানববন্ধন রংপুরে ঘাঘটের ভাঙ্গনে দিশেহারা নদীর পাড়ের মানুষ

ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরে তরুন ফায়ার ফাইটার সোহেল রানার জানাজা অনুষ্টিত নিজ গ্রামে দাফন

সাইবার নিউজ একাত্তর ডেস্ক :

রাজধানীর কুর্মিটোলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বাহিনীর ফায়ারম্যান সোহেল রানা (৩৪)এর মরদেহ সিঙ্গাপুর থেকে দেশে আনার পর আজ মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১১টায় ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরে তার জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাযা নামাজে অংশ নেয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল (এমপি), ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসাইন (পিএসপি,এনডিসি), সাবেক মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী আহমদ খান, দি লাইফ সেভিং ফোর্স সদর দফতরের পরিচালক (অপস অ্যান্ড মেইনটেইন্যান্স) মেজর এ কে এম শাকিল নেওয়াজ,উপ পরিচালক,ডিডি,ঢাকা দেবাশীষ বর্ধন, সহকারী পরিচালক মো: সালাউদ্দিন, পুলিশের লালবাগ বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) ইব্রাহীম খান, এনটিএমসির ডিজি জিয়াউল আহসানসহ নিহতের পরিবারের সদস্যরা এবং অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জানাজা শেষে সোহেল রানার মরদেহ তার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের ইটনায় পাঠানো হয়েছে। সোহেল রানার পরিবারের সদস্যরা তার সফরসঙ্গী হিসেবে রয়েছেন এ্যাম্বুলন্সে। সেখানে আজ মঙ্গলবার বিকেলে দ্বিতীয় জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে সোহেল রানাকে দাফন করা হবে। দি লাইফ সেভিং ফোর্স সদর দফতরের পরিচালক (অপস অ্যান্ড মেইনটেইন্যান্স) মেজর এ কে এম শাকিল নেওয়াজ আজ মঙ্গলবার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আজ বেলা সোয়া ১১টায় ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরে মরহুম কৃর্মিটোলা ফায়ার স্টেশনের ফায়ারম্যান সোহেল রানাকে সম্মান জানানো হবে। বিউগলের সুর বাজিয়ে ফায়ার সার্ভিসের পতাকায় মোড়ানো সোহেল রানার কফিনে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন ফায়ার সার্ভিসের একটি চৌকস দল। সেখানে ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে তাকে গার্ড অব অনার জানানো হয়। পরে তার মরদেহ নেয়া হয় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে।

আজ সকালে সিএমইএচ হিমঘর থেকে ফায়ারম্যান সোহেল রানার মরদেহ তার কর্মস্থল সিদ্দিক বাজারে ফায়ার সার্ভিসের সদর দফতরে আনা হয়। কিছুক্ষণের জন্য সহকর্মীদের সোহেলের মুখখানি শেষবারের মতো দেখানো হয়। এসময় সহকর্মীদের কান্নায় ভারী হয়ে ওঠে সেখানকার পরিবেশ। সোহেল রানার সহকর্মীরা তাকে চোখের জলে শেষ বারের মতো চিরবিদায় জানান। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আমরা সোহেল রানার সর্বোচ্চ চিকিৎসা নিশ্চিতের চেষ্টা করেছি। তার জন্য আপনারা সবাই দোয়া করবেন। এদিকে,দি লাইফ সেভিং ফোর্স সদর দফতরের ডিউটি অফিসার মো: কামরুজ্জামান জানান, সোমবার দিবাগত রাত ১০টা ৪০ মিনিটে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্স বিমানে করে সোহেল রানার মরদেহ ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আনা হয়। এ সময় ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক (ডিজি) ) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসাইন(পিএসপি,এনডিসি), দি লাইফ সেভিং ফোর্স সদর দফতরের পরিচালক (অপস অ্যান্ড মেইনটেইন্যান্স) মেজর এ কে এম শাকিল নেওয়াজ, উপ পরিচালক,ডিডি,ঢাকা দেবাশীষ বর্ধন, সহকারী পরিচালক মো: সালাউদ্দিন,উত্তরা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো: সফিকুল ইসলাম সংশ্লিষ্ঠ অন্যান্য বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও তার পরিবারের সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।

দি লাইফ সেভিং ফোর্স সদও দপ্তর সুত্রে জানা যায়, সোমবার স্থানীয় সময় ভোর ৪টা ১৭ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ২টা ১৭ মিনিট) সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন সোহেল রানা। গত ২৮ মার্চ রাজধানীর বনানীর এফআর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ২৬ জন নিহত এবং ৭১ জন আহত হন। ওইদিন এফআর টাওয়ারে আগুন নেভানো ও আটকে পড়া ব্যক্তিদের উদ্ধারে কাজে অংশ নিয়েছিলেন কুর্মিটোলা ফায়ার স্টেশনের ফায়ারম্যান সোহেল রানা ।  তখন ভবনে আটকে পড়া চার-পাঁচজনকে উদ্ধার করে একসঙ্গে নিচে নামানোর সময় উঁচু ল্যাডার (মই) টি ওভারলোড দেখাচ্ছিল। ওভারলোড হলে সাধারণত ল্যাডার নিচে নামে না, স্বয়ংক্রিয়ভাবে লক হয়ে যায়। তাই ল্যাডারের ওজন কমাতে সোহেল নিজেই ল্যাডার বেয়ে নিচে নামছিলেন। ল্যাডারের ওজন কমায় সেটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালু হয়ে যায়। এতে তার একটি পা ল্যাডারের ভেতরে ঢুকে যায়। এছাড়া তার শরীরের সেফটি বেল্টটি ল্যাডারে আটকে পেটে প্রচন্ড চাপ লাগে। এরপর থেকে সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন তরুন ফায়ারম্যান সোহেল রানা (৩৪)। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা ক্যান্টরম্যান সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তার চিকিৎসা চলে।

পরে সোহেল রানাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে গত ৫ এপ্রিল ফায়ারম্যান সোহেল রানাকে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। ৮ এপ্রিল ২০১৯ সোমবার স্থানীয় সময় ভোর ৪টা ১৭ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ২টা ১৭ মিনিট) সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় না ফেরার দেশে চলে যান তরুন ফায়ারম্যান সোহেল রানা।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে ভাগ করুন

খন্দকার ভবন তানোর থানার মোড় প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন তানোর, রাজশাহী থেকে প্রকাশিত। মোবাইল: ০১৭১৫-২৯৭৫২৪, ০১৭১৬-৮৪৪৪৬৫, ০১৯২০-৪৪০১১২ E-mail: cbnews71@gmail.com Web: www.cybernews71.com Facebook: www.facebook.com/cbnews71 www.twitter.com/CyberNews71 Youtube: //www.youtube.com/cbnews71

© কপিরাইট : খন্দকার মিডিয়া গ্রুপ

 বাল্যবিবাহ রোধ করুন, মাদক মুক্ত সমাজ গড়ুন।

ব্রেকিং নিউজ :