বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কুমিল্লায় ৩৮ দিন পর শিশু’র লাশ উদ্ধার লুটপাট-দুর্নীতি রুখতে মুক্তিযুদ্ধের পুনর্জাগরণের ডাক কুমিল্লার মুরাদনগরে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সাংস্কৃতিক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রাজশাহীর তানোরে আলুর জমিতে আছড়ে পড়ল প্রশিক্ষণ বিমান’ পাইলট আহত অপর প্রশিক্ষণার্থী অক্ষত ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে রাজধানীতে গ্রেফতার-৪২ বিজিবির চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে গোদাগাড়ীতে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা-হেরোইন উদ্ধার যুবক আটক রংপুরে প্রথম ওমেন্স ড্রিমার ক্রিকেট একাডেমি টুর্নামেন্ট’র খেলা শুরু র‌্যাব-৫ এর অভিযানে বিদেশী পিস্তল’ ওয়ান শুটারগান, গুলি ও ম্যাগজিনসহ ০১ অস্ত্র ব্যবসায়ী গ্রেফতার মোহনপুরে পূজা মন্দিরের নিরাপত্তায় কাজ করছে সশস্ত্র আনসার সদস্যরা রংপুর মেট্রোপলিটন ডিবি পুলিশের এএস আই কর্তৃক নবম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ!

শিবগঞ্জে যুবকের দুই হাতের কব্জি কর্তনের ঘটনায় আদালতে চার আসামীর ৪দিনের রিম্যান্ড মন্জুর

এম ইমরান খান, (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) শিবগঞ্জ থেকে : 

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় রুবেল আলী নামে এক যুবকের দুই হাতের কব্জি থেকে কেটে দিয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ১ (শিবগঞ্জ) আসনের এমপি সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুলের ক্যাডার নামে পরিচিত ফয়েজ চেয়ারম্যানসহ দুর্বৃত্তরা।

বুধবার ১৮ই সেপ্টেম্বর ২০১৯ইং দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার নয়ালাভাঙ্গা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার ভোরে রুবেলকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি হাসপাতালের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রুবেল আলী বয়স (২৮) তার বাড়ি নয়ালাভাঙ্গা গ্রাম। তার বাবার নাম খোদাবক্স, রুবেল একজন আম ব্যবসায়ী বলে জানান এলাকা বাসী।

এ বিষয়ে অনুসন্ধান করে জানা যায়, তার চাচাত ভাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক আবদুস সালামের সঙ্গে নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফয়েজ উদ্দিনের বিরোধ রয়েছে। শিবগঞ্জ সীমান্তের চরপাকা গরুর বিট-খাটাল নিয়ে তাদের বিরোধ। এর জের ধরে শিমুল এমপির ক্যাডার চেয়ারম্যান ফয়েজের নির্দেশে তার হাত কেটে দেয়া হয়েছে।

তিনি আরো জানান, বুধবার রাত ১০টার দিকে রুবেল, তার দুই’বন্ধু রবিউল ও হাবু চেয়ারম্যান ফয়েজ উদ্দিনের ব্যক্তিগত কার্যালয়ের সামনে দিয়ে যাচ্ছিলেন। চেয়ারম্যান তার লোকজন দিয়ে তাদের আটক করান এবং একটি ঘরে নিয়ে তাদের রাখা হয়। রুবেল চেয়ারম্যানকে তাদের ছেড়ে দিতে অনুরোধ করেন। তখন চেয়ারম্যান তাকে চুপচাপ বসে থাকতে বলেন। রাত ২টার দিকে রুবেলকে স্কুলের পেছনে নিয়ে দুই হাত কেটে ফেলার নির্দেশ দেন। তখন চেয়ারম্যানের ক্যাডার হোসেন আলী ও জিয়ার নির্দেশ মোতাবেক রুবেলের দুই হাত কব্জি থেকে কেটে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে চলে যায়। চিৎকার শুনে বন্ধুরা রুবেলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, শিমুল এমপির ক্যাডার চেয়ারম্যান ফয়েজ উদ্দিন বরাবরই সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক। তিনি শীর্ষ মাদক ব্যাবসায়ী। ফেনসিডিল, ইয়াবা, অস্ত্র কারবারে জড়িত ও বিভিন্ন ছিনতাইকারী হিসাবে শিবগঞ্জ উপজেলার সকল জনগনের কাছে পরিচিত। বর্তমান এমপির আশ্রয়ে ও প্রশ্রয়ে মদদপুষ্ট হয়ে এমপির ক্ষমতাকে ব্যবহার করে বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন কায়দায়। উজিরপুরের ঘাট ও অত্র এলাকার মাদক ব্যাবসায়ী প্রভাব বিস্তার করার কারনে তার প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করা এবং সবাইকে তার বিরুদ্ধে কিংবা এমপি শিমুলের বিরুদ্ধে যাতে আর কেও না যায় সেজন্যই নির্মমভাবে রুবেলের দুই হাতের কব্জি কেটে নিয়েছে।

উল্লেখ্য: যে উজিরপুর ঘাটের ব্যাবসার সঙ্গে জড়িত এমপির বড় ভাই জাকির আহম্মেদ মিতু, চেয়ারম্যান ফয়েজের পার্টনার। উজিরপুর ঘাটের সিডিউল ফেলা থেকে শুরু করে প্রতিপক্ষদের সাথে বিরোধ করে। একাধিক বার বর্তমান সংসদ সদস্যের নিজ বাড়িতে বসা হয়েছে। যতবার বসা হয়েছে ঠিক ততবারই এমপি তার ক্যাডার চেয়ারম্যান ফয়েজ কে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য প্রসাশনের উপর প্রভাব বিস্তার করে উজিরপুর ঘাট তার নামে করে দেন ও তার ভাইকে পার্টনার করেন। এর পরপরই প্রতিপক্ষর সাথে বিরোধের সৃষ্টি হয়, পর্যায় ক্রমে ঘাটসহ আশেপাশের সকল এলাকায় মাদকের রাজত্ব গড়ে তুলে ও ক্যাডার বাহিনী নিয়ে যাকে যখন ইচ্ছা হয় তখন মারধর করে চাঁদা আদায় করেন। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে চেয়ারম্যানসহ তার ক্যাডাররা বর্বরোচিত হামলা চালায়। এ খটনায় তাৎক্ষণিক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমপি সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল কে ফোন দিলেও তা এখন পর্যন্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করেন নাই, বরং হাতটি কাটার সুকৌশলে ব্যাবস্থা করে দিয়েছেন।

আরো জানা যায়, ২০১৭ সালে ইউনিয়ন পরিষদের নয় সদস্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন যে, চেয়ারম্যান তাদের গুলি করে হত্যার হুমকি দিয়েছেন। সে এমপির অত্যান্ত আস্তাভাজন এবং ঘনিষ্ঠতম ক্যাডার নৌকার বিরোধী ফয়েজ চেয়ারম্যান। এলাকার আওয়ামী লীগ নেতার বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের  মামলায় গত মার্চে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠায়। পরে তিনি জামিনে মুক্ত হন।

দুই হাতের কব্জি কাটার ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাত পৌণে ৯ টার দিকে মূল আসামী ফয়েজ চেয়ারম্যানসহ তার অপর এক সহযোগী তারেককে গ্রেফতার করেছে আমনুরা ফাঁড়ির পুলিশ। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো যথাক্রমে: মূল আসামী উজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফয়েজ আহমদ (৩৫), সহযোগী তারেক আহমদ (৩৫), জাহাঙ্গীর আলম (৩৫) ও আলাউদ্দিন (৩৫)।

রিম্যান্ডের বিষয়ে শিবগঞ্জ থানা পুলিশের (তদন্ত) ওসি আতিকুল ইসলাম জানান, গ্রেফতারকৃত ফয়েজ চেয়ারম্যান কব্জি কাটার ঘটনা স্বীকার করেছেন। শুক্রবার বিকেলে গ্রেফতারদের রিমান্ডের আবেদন করলে আদালত ৪দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সাইবার নিউজ একাত্তর/ ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং/ আব্দুর রাজ্জাক (রাজু)

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে ভাগ করুন

খন্দকার ভবন তানোর থানার মোড় প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন তানোর, রাজশাহী থেকে প্রকাশিত। মোবাইল: ০১৭১৫-২৯৭৫২৪, ০১৭১৬-৮৪৪৪৬৫, ০১৯২০-৪৪০১১২ E-mail: cbnews71@gmail.com Web: www.cybernews71.com Facebook: www.facebook.com/cbnews71 www.twitter.com/CyberNews71 Youtube: //www.youtube.com/cbnews71

© কপিরাইট : খন্দকার মিডিয়া গ্রুপ

 বাল্যবিবাহ রোধ করুন, মাদক মুক্ত সমাজ গড়ুন।

ব্রেকিং নিউজ :