সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:২৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কুমিল্লায় ৩৮ দিন পর শিশু’র লাশ উদ্ধার লুটপাট-দুর্নীতি রুখতে মুক্তিযুদ্ধের পুনর্জাগরণের ডাক কুমিল্লার মুরাদনগরে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সাংস্কৃতিক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রাজশাহীর তানোরে আলুর জমিতে আছড়ে পড়ল প্রশিক্ষণ বিমান’ পাইলট আহত অপর প্রশিক্ষণার্থী অক্ষত ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে রাজধানীতে গ্রেফতার-৪২ বিজিবির চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে গোদাগাড়ীতে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা-হেরোইন উদ্ধার যুবক আটক রংপুরে প্রথম ওমেন্স ড্রিমার ক্রিকেট একাডেমি টুর্নামেন্ট’র খেলা শুরু র‌্যাব-৫ এর অভিযানে বিদেশী পিস্তল’ ওয়ান শুটারগান, গুলি ও ম্যাগজিনসহ ০১ অস্ত্র ব্যবসায়ী গ্রেফতার মোহনপুরে পূজা মন্দিরের নিরাপত্তায় কাজ করছে সশস্ত্র আনসার সদস্যরা রংপুর মেট্রোপলিটন ডিবি পুলিশের এএস আই কর্তৃক নবম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ!

সাদুল্লাপুর টার্কি মুরগি পালন করে স্বাবলম্বী আসমা বেগম

মশিউর রহমান, (গাইবান্ধা) সাদুল্লাপুর থেকে :

টার্কি জাতের মুরগি পালন করে স্বাবলম্বী হয়েছেন গাইবান্ধা সাদুল্লাপুর উপজেলার ভাতগ্রাম ইউনিয়নের গঙ্গানারায়ন পুর গ্রামের মিজানুর রহমানের সহ-ধর্মিণী আসমা বেগম । ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে শুরুতেই ১০০ টি টার্কি বাচ্চা নিয়ে খামার শুরু করেন। কিছুদিন পর ৫০ টি টার্কি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে মারা যায়। ঋন করে আবার ৫০ টি টার্কি বাচ্চা নিয়ে টার্কি পালন শুরু করেন। বর্তমানে এখন ২ শতাধিক টার্কি রয়েছে।

আর এই টার্কি মুরগি বিক্রি ও ডিম বিক্রি করেই আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন তার পরিবার। স্বাবলম্বী আসমা বেগমের এই টার্কি খামার দেখে এবং তা লাভজনক হওয়ায় আশপাশের অনেক বেকার যুবক টার্কি চাষে উৎসাহিত হয়ে উঠছেন। আসমা বেগম জানান, সমাজে অবহেলিত ছিলাম কিন্তু ভাগ্যের চাকা ঘুরে দাঁড়িয়েছি টার্কি পালন করে। সঠিক পরিচর্যার মাধ্যমে দিন দিন বাড়তে থাকে টার্কি মুরগির সংখ্যা। বর্তমানে আমার খামারে ২ শতাধিক টার্কি মুরগি রয়েছে।

তিনি বলেন, টার্কির খাবারের জন্য কোনো সমস্যা হয় না। দানাদার খাবারের সঙ্গে সবুজ ঘাস, লতাপাতা, পোকা-মাকড় এমনকি সবজিও খেতে বেশ পছন্দ করে। টার্কির রোগবালাই খুব কম, এদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অন্য মুরগি থেকে অনেক বেশি। একটি টার্কি মুরগি বছরে প্রায় ১২০ থেকে দেড়শটি পর্যন্ত ডিম পাড়ে। ডিম থেকে বাচ্চা হওয়ার ছয় মাসের মধ্যে টার্কি আবার ডিম দিতে শুরু করে। আসমা জানান এক দিন বয়সী টার্কি মুরগির বাচ্চা বিক্রি হয় ২০০ টাকা প্রতিটি ডিম বিক্রি হয় ৫০ টাকা । তার খামার থেকে অন্য খামারিরাও বাচ্চা নিয়ে যাচ্ছেন। প্রতি মাসে তার খামার থেকে প্রায় ৬০ হাজার টাকার আয় হয়।

এ দিয়েই ২ ছেলে ১ মেয়ের পড়ালেখাসহ সুন্দর ভাবে সংসার চলছে আসমা বেগমের। তিনি বলেন, টার্কি চাষের জন্য আমি অন্যদের উদ্বুদ্ধ করছি, যারা টার্কি পালনে পরামর্শ নিতে আসে তাদের আন্তরিক ভাবে সহযোগিতা করি যাতে আমার মত বেকার অবহেলিতরা সফল হতে পারে। প্রতি কেজি ৩০০ টাকা দরে পাঁচ- ছয় কেজি ওজনের একটি টার্কির দাম ১৫০০ থেকে ১৮০০ টাকা। সাদুল্লাপুর উপজেলার প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা : এ এস এম সাদেকুর রহমান বলেন, টার্কি বর্তমানে একটি সফল ব্যবসা, টার্কি পালন করে বর্তমানে অনেকেই সফল হয়েছে। লাভজনক হওয়ায় সাদুল্লাপুর দিন দিন টার্কি মুরগির চাষ বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমরা সব সময়ই টার্কি খামারিদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি এবং তাদের বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে আসছি।

 

 

সাইবার ‍নিউজ একাত্তর/ ২০ই এপ্রিল, ২০১৯ ইং/হাফিজুল

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে ভাগ করুন

খন্দকার ভবন তানোর থানার মোড় প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন তানোর, রাজশাহী থেকে প্রকাশিত। মোবাইল: ০১৭১৫-২৯৭৫২৪, ০১৭১৬-৮৪৪৪৬৫, ০১৯২০-৪৪০১১২ E-mail: cbnews71@gmail.com Web: www.cybernews71.com Facebook: www.facebook.com/cbnews71 www.twitter.com/CyberNews71 Youtube: //www.youtube.com/cbnews71

© কপিরাইট : খন্দকার মিডিয়া গ্রুপ

 বাল্যবিবাহ রোধ করুন, মাদক মুক্ত সমাজ গড়ুন।

ব্রেকিং নিউজ :